Rape

তরুণীকে ধর্ষণের পর মা-মেয়ের মাথা ন্যাড়া।

বগুড়ায় ‘ধর্ষণের শিকার’ এক কিশোরী ও তার মার মাথা ন্যাড়া করে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। থানায় দায়ের করা মামলা সূত্রে জানা গেছে, এ বছর এস এস সি পাশ করা এক কিশোরিকে ভালো কলেজে ভর্তির প্রলোভন দেখিয়ে তাকে তুফান নামের এক যুবক ১৭ জুলাই ও পরে আরো কয়েকবার তাকে ধর্ষন করে। এ কাজে তুফানকে সাহায্য করে তার কয়েকজন সহযোগী ।

বিষয়টি জানতে পেরে তুফানের স্ত্রী আশা ও তার বড় বোন বগুড়া পৌরসভার সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মার্জিয়া হাসান রুমকিসহ একদল সন্ত্রাসী শুক্রবার দুপুরে ওই কিশোরী এবং তার মাকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যায়। পরে তাদের মারধর করে মাথা ন্যাড়া করে দেন।”

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তুফান ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন জানিয়ে ওসি বলেন, এজাহারে তুফান সরকারের বিরুদ্ধে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে। অন্য আসামিদের বিরুদ্ধে কিশোরী এবং তার মাকে অপহরণ, মারধর ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ আনা হয়েছে। বগুড়া সদর থানার ওসি এমদাদ হোসেন জানান, ধর্ষণের ঘটনায় শুক্রবার বিকালে ওই কিশোরীর মায়ের করা মামলায় জাতীয় শ্রমিক লীগ বগুড়া শহর শাখার আহ্বায়ক তুফান সরকারসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তার অন্যরা হলেন, তুফানের ‘সহযোগী’ শহরের চকসুত্রাপুর কসাইপাড়া এলাকার আলী আজম দিপু (২২), কালিতলার রুপম (২২) ও খান্দার সোনারপাড়ার আতিক (২৩)।

Comments

comments