fingers, কাটা আঙ্গুল

স্বামী মারা গেলে শোক পালনের জন্য স্ত্রীর আঙ্গুল কেটে ফেলা হয় যেখানে

স্বামী মারা গেলে শোক পালনের জন্য স্ত্রীর আঙ্গুল কেটে ফেলা হয়?  বিষয়টি শুনতে আশ্চর্য লাগলেও এ রকমই একপ্রথা প্রচলিত আছে ইন্দোনেশিয়ার পাপুয়ার দানি সম্প্রদায়ের মধ্যে।

প্রচলিত প্রথা অনুযায়ী, যখনই পরিবারের কর্তা মারা যান, শোক পালনের জন্য স্ত্রীর দুই হাতের বেশ কয়েকটি আঙ্গুল কেটে দেয়া হয়। সেখানকার অধিবাসীদের বিশ্বাস, এতে নাকি মৃতের আত্মার শান্তি হয়। আঙ্গুল কাটার আগে বিধবা নারীর হাত শক্ত করে বেঁধে দেয়া হয় যাতে হাতে রক্তের প্রবাহ বন্ধ হয়ে যায়। তার পর কুড়াল দিয়ে কেটে দেয়া হয় আঙ্গুল।

যন্ত্রণায় কাতরাতে কাতরাতে এই প্রথা সহ্য করতে হয় সেখানকার বিধবাদের। দীর্ঘ দিন ধরে নিষ্ঠুর এই প্রথা চলে আসছে দানি সম্প্রদায়ের মধ্যে। ওই দ্বীপে গেলেই দেখা মিলে অনেক আঙ্গুলবিহীন নারীর। তবে সম্প্রতি ইন্দোনেশিয়ার সরকার এই অমানবিক প্রথাটির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

Comments

comments