বাংলাদেশের প্রশংসায় স্মিথ

বাংলাদেশের প্রশংসায় স্মিথ

মিরপুর টেস্টের দৃশ্যপটটা এভাবে সাজানো থাকবে, সেটা বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়ার মাঠে নামার আগে ঘুণাক্ষরেও ভাবার কথা নয় কারও। হার-জিত যাইহোক, সাড়ে তিন দিনে ম্যাচের ফল বেরিয়ে আসার চিন্তা করেনি কেউই। তবে প্রথম দুই দিনের খেলার পরই আসলে বোঝা গিয়েছিল বৃষ্টি বাগড়া না দিলে পঞ্চম দিনে আর গড়াচ্ছে না ম্যাচ। শেষ পর্যন্ত চতুর্থ দিনের দ্বিতীয় সেশনেই ঐতিহাসিক জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ। বদলে যাওয়া এক বাংলাদেশও তাতে দেখে ফেলল অস্ট্রেলিয়া। যে বাংলাদেশ প্রথম দিন থেকেই ভীতি ছড়িয়েছে সফরকারীদের ক্যাম্পে। অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ হারের পর মেনেও নিলেন ‘বাংলাদেশের বিপজ্জনক দল’। মুশফিকদের নিয়ে মুখে ঝরল প্রশংসার বাণীও।

মিরপুর টেস্ট শুরুর আগেই অবশ্য অস্ট্রেলিয়ার জানা হয়ে গিয়েছিল, কঠিন চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করতে তাদের জন্য। ইংল্যান্ডকে ঘরের মাঠে হারিয়ে টেস্ট ক্রিকেটে নিজেদের সাফল্যের পথ তৈরি করা টাইগাররা মাঠেও সেটা দেখিয়ে দিল। যে বাংলাদেশ স্মিথের চোখে ‘বিপজ্জনক’। টাইগারদের অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক মূল্যায়ন করলেন এভাবে, ‘গত কয়েক বছরে তারা অনেক দূর এগিয়ে গেছে। আমার মতে তারা বিপজ্জনক এক দল, বিশেষ করে ঘরের মাঠে; যা আমরা নিজেরাই দেখলাম। মাত্রই তারা আমাদের হারিয়ে দিয়েছে, ইংল্যান্ডকে হারানোটাও বেশি দিন আগের কথা নয়। সবমিলিয়ে এই কন্ডিশনে তারা আত্মবিশ্বাসী এক দল।’

সাকিব আল হাসান এই টেস্টে ছিলেন নিজের সেরা ছন্দে। ব্যাটিং-বোলিংয়ের অস্ট্রেলিয়ার ওপর রীতিমত রাজত্ব করেছেন তিনি। তার সঙ্গে ব্যাট হাতে তামিম ইকবাল উজ্জ্বলতা ছড়িয়েছেন দুই ইনিংসেই। তাদেরকে নিয়ে আলাদা করে বলতেই হলো স্মিথকে। একই সঙ্গে প্রশংসা করতেও ভুল হলো না অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়কের, ‘তারা ভালোমানের কিছু খেলোয়াড় পেয়েছে। তামিম ইকবাল টপ অর্ডারে খুব ভালো করেছে, আক্রমণাত্মক ক্রিকেটে খেলেছে সে। সাকিব ভীষণ ভালো করেছে প্রথম ইনিংসে, আর দুই ইনিংসেই ভালো বোলিং করেছে। ওদের অভিজ্ঞ খেলোয়াড়রা তাদের খেলা দাঁড় করিয়েছে। সবমিলিয়ে আমার মতে তারা খুব ভালো খেলেছে।’

ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতা সাকিব দ্বিতীয় ইনিংসে পেয়েছেন ৫ উইকেট। সেঞ্চুরি পাওয়া ডেভিড ওয়ার্নার ও তাকে সঙ্গ দেওয়া স্মিথের উইকেট দুটি তুলে নিয়ে জয়ের পথ তৈরি করেন এই অলরাউন্ডার। তার প্রসঙ্গে স্মিথ বললেন, ‘প্রথম ইনিংসে ও (সাকিব) বেশ আক্রমণাত্মকভাবে খেলেছে। একটু সুযোগ পেলেই চড়াও হয়েছে। আমাদের পেসাররা যেমন শর্ট ও ওয়াইড ডেলিভারি দিয়েছে, তেমনি স্পিনাররাও সম্ভবত তাদের লেন্থটা বজায় রাখতে পারেনি। আমার মনে হয় এই কারণেই সাকিব খুব ভালো করেছে।’

(বাংলা ট্রিবিউন)

Comments

comments