আলিম দারের ভুল সিদ্ধান্তের বলি বাংলাদেশ

আলিম দারের ভুল সিদ্ধান্তের বলি বাংলাদেশ

কিছুতেই মানতে পারছিলেন না মেহেদী হাসান মিরাজ। রিভিউও নেই যে নেবেন। অনেকটা বাধ্য হয়েই মাঠ ছাড়তে হয়েছে টাইগার অলরাউন্ডারকে। অথচ আজ দারুণ ছন্দে ছিলেন তিনি। নাথান লায়ন, অ্যাশটন অ্যাগার, প্যাট কামিন্সদের মতো বোলারদের দারুণভাবে মোকাবিলা করছিলেন মিরাজ। অথচ আম্পায়ার আলিম দারের বিতর্কিত সিদ্ধান্তে প্যাভিলিয়নে ফিরতে হলো তাঁকে। বাংলাদেশের বিপক্ষে আরেকটি বিতর্কিত সিদ্ধান্ত দিলেন পাকিস্তানি আম্পায়ার আলিম দার।

৭২তম ওভারে বল করতে এসেছিলেন নাথান লায়ন। বলটা বাঁক নিয়ে মিরাজের কোমরে লেগে জমা হয় পিটার হ্যান্ডসকম্বের হাতে। অস্ট্রেলীয় ফিল্ডাররা আবেদন করলে সহজেই আঙুল তুলে দেন আলিম দার। বিস্ময়ে বেশ কিছুক্ষণ উইকেটেই দাঁড়িয়ে ছিলেন মিরাজ। ৩৮ বলে ১৮ রান করেন এই অলরাউন্ডার। মিরাজ আউট হওয়ার পর নাসির ও তাইজুল দ্রুতই ফিরে যান।

আলিম দার নামটি সামনে আসলেই ২০১৫ সালের বিশ্বকাপের কথা মনে পড়ে যায় টাইগার সমর্থকদের। সেবার ভারতের বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালের ভুল সিদ্ধান্ত দিয়ে বাংলাদেশি ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে ‘ভিলেন’ বনে যান পাকিস্তানের এই আম্পায়ার। সেই ম্যাচে রুবেল হোসেনের বলে রোহিত শর্মার আউট দেননি তিনি। কোমরের নিচের বলটাকেও ‘নো’ ঘোষণা দেন। পরে রোহিত শর্মা ওই ম্যাচের মোড়ই ঘুড়িয়ে দেন।

(এনটিভি)

Comments

comments